২০০৭ সালের থেকে আরও ভয়াবহ মন্দার কবলে বিশ্ব অর্থনীতি: IMF

এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: করোনাভাইরাস মহামারীর জেরে বিশ্ব অর্থনীতি ইতোমধ্যে মন্দার কবলে পড়েছে। এর গ্রাস থেকে উন্নয়নশীল দেশগুলিকে বের করে আনতে বিপুল আর্থিক সহায়তা প্রয়োজন বলে শুক্রবার মন্তব্য করলেন আন্তর্জাতিক অর্থ ভাণ্ডার-এর (IMF) প্রধান ক্রিস্টালিনা জর্জিয়েভা। এদিন এক অনলাইন প্রেস বিবৃতিতে তিনি বলেন, ‘করোনা সংক্রমণ যে বিশ্ব অর্থনীতি মন্দা ডেকে এনেছে তা নিয়ে কোনও সংশয় নেই।’ শুধু তাই নয় ২০০৯ সালের বিশ্ব অর্থনৈতিক মন্দার থেকেও এবার পরিস্থিতি আরও ঘোরাল বলে সতর্ক করে দিয়েছেন তিনি।

বিশ্ব অর্থনীতির এই হঠাৎ স্থবিরতা উন্নয়নশীল দেশগুলিকে সর্বাধিক ক্ষতিগ্রস্ত করেছে। এই পরিস্থিতিতে উন্নয়নশীল বাজারগুলির এই মুহূর্তে আড়াই লক্ষ কোটি মার্কিন ডলার প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেছেন তিনি। IMF প্রধান এও মনে করিয়ে দিয়েছেন, খুব কম করে হিসেব করলেও উন্নয়নশীল দেশগুলিকে মন্দার করাল থাবা থেকে বাঁচাতে এই পরিমাণ অর্থ প্রয়োজন। উল্লেখ্য, করোনা সংক্রমণের জেরে উদ্ভূত অর্থনৈতিক সংকট মোকাবিলায় ৮০টি’র বেশি দেশ IMF-এর থেকে জরুরি আর্থিক সহায়তা চেয়েছে। এর মধ্যে অধিকাংশ দেশ নিম্ন আয়ের দেশ।

গত বছরের শেষের দিকে চিন থেকে যে রোগের সূত্রপাত সেই করোনাভাইরাসের গ্রাসে এখন গোটা বিশ্ব। এই মুহূর্তে ১৯৯টি দেশ এবং অঞ্চলে এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে। আক্রান্তর সংখ্যা ৫ লক্ষ ৭০ হাজার ছাড়িয়েছে। আর মৃত্যু হয়েছে ২৬,৪৪৭ জনের। যার মধ্যে সর্বাধিক ক্ষতিগ্রস্ত দুই দেশ হল ইতালি এবং স্পেন। ইতালিতে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৯,১৩৪। আর স্পেনে সেই সংখ্যাটা ৪,৯৩৪।

ভাইরাসের সংক্রমণের কারণে চলতি বছরে ইউরোপের আর্থিক বৃদ্ধির হার শূন্যেরও নীচে নেমে আসতে পারে বলে সম্প্রতি আশঙ্কার কথা জানিয়েছে ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন (EU)। এমনকী এর করাল গ্রাস থেকে ভারতীয় অর্থনীতি সম্পূর্ণ রক্ষা পাবে না বলে আশঙ্কা প্রকাশ করলেন ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাংকের গভর্নর শক্তিকান্ত দাশ। তবে পরিস্থিতি মোকাবিলায় যুদ্ধকালীন তৎপরতায় সরকার পদক্ষেপ করছে বলেও আশ্বস্ত করেছেন তিনি। উদ্ভূত পরিস্থিতি মোকাবিলায় বিশ্ব বাজারকে চাঙ্গা করতে ৫ লক্ষ মার্কিন ডলার অর্থ দিতে রাজি হয়েছে বিশ্বের সেরা ২০টি অর্থনৈতিকভাবে শক্তিশালী দেশের সংগঠন G20।

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *