আ.লীগ নেতা‌কে রড দি‌য়ে পেটা‌লেন চেয়ারম্যান

আধিপত্য‌ বিস্তার‌কে কেন্দ্র ক‌রে শরীয়তপুরের ‌ভেদরগঞ্জ উপ‌জেলা আওয়ামী লী‌গের সদস্য মো. সালাউ‌দ্দিন মাতব্বরকে (৫৪) রড দি‌য়ে পি‌টি‌য়েছেন নারায়ণপুর ইউনিয়‌ন প‌রিষ‌দের চেয়ারম্যান না‌জিম উদ্দিন তালুকদার।

শ‌নিবার (২৮ মার্চ) সন্ধ্যা সোয়া ৬টার দি‌কে উপ‌জেলার ইকরকা‌ন্দি খানবা‌ড়ি জা‌মে মস‌জিদের সাম‌নে এ ঘটনা ঘ‌টে।

আহত মো. সালাউ‌দ্দিন মাতব্বর নারায়ণপুর ইউনিয়‌নের ৪ নম্বর ওয়া‌র্ডের ইকরকা‌ন্দি গ্রা‌মের মৃত হা‌জি মো. ইউনুস মাতব্ব‌রের ছে‌লে। তি‌নি নারায়ণপুর ইউনিয়‌নের সা‌বেক চেয়ারম্যান এবং উপ‌জেলা আওয়ামী লী‌গের সদস্য।

ভেদরগঞ্জ থানা পু‌লিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, আধিপত্য বিস্তার‌কে কেন্দ্র ক‌রে নারায়ণপুর ইউনিয়‌নের চেয়ারম্যান না‌জিম উদ্দিন তালুকদারের স‌ঙ্গে ভেদরগঞ্জ উপ‌জেলা আওয়ামী লী‌গের সদস্য মো. সালাউ‌দ্দিন মাতব্বরের দীর্ঘ‌দিন ধরে দ্বন্দ্ব চলছে।

শ‌নিবার সন্ধ্যায় সালাউ‌দ্দিন মাতব্বর ইকরকা‌ন্দি খানবা‌ড়ি জা‌মে মস‌জিদে মগ‌রি‌বের নামাজ শে‌ষে বা‌ড়ির দি‌কে যাওয়ার সময় চেয়ারম্যান না‌জিম উদ্দিন তালুকদার ও তার লোক‌দের স‌ঙ্গে বাগবিতণ্ডা হয়। একপর্যা‌য়ে না‌জিম উদ্দিন তালুকদারের নেতৃ‌ত্বে ম‌ফিজ তালুকদার, স্থানীয় ইউপি সদস্য রা‌জিব তালুকদার, অমি তালুকদারসহ ১২-১৪ লোক সালাউ‌দ্দিনকে লোহার রড দি‌য়ে পিটি‌য়ে আহত করে। স্থানীয়রা আহত অবস্থায় তা‌কে ভেদরগঞ্জ উপ‌জেলা স্বাস্থ্য কম‌প্লে‌ক্সে ভ‌র্তি ক‌রে। এ ঘটনায় সালাউ‌দ্দিন বাদী হ‌য়ে ভেদরগঞ্জ থানায় এক‌টি মামলা ক‌রে‌ছেন।

সালাউ‌দ্দিন মাতব্বর ব‌লেন, ২০১৬ সা‌লে ইউনিয়ন নির্বাচনে আমি প্র‌তিদ্বন্দ্বিতা ক‌রি বর্তমান চেয়ারম্যান না‌জিম উদ্দিন তালুকদারের ভাই মৃত না‌সির উদ্দিন তালুকদারের স‌ঙ্গে। সেই নির্বাচ‌নে ভোট কারচু‌পির মাধ্য‌মে জয়ী হন না‌সির উদ্দিন তালুকদার। সেখান থে‌কেই না‌জিম উদ্দিন তালুকদার আমার ওপর ক্ষিপ্ত। আজ একা পে‌য়ে আমার ওপর হামলা চালায় তারা। আমি এ ঘটনার বিচার চাই।

চেয়ারম্যান না‌জিম উদ্দিন তালুকদার ব‌লেন, আমি এ ব্যাপা‌রে কিছু জা‌নি না। আমার ‌বিরু‌দ্ধে মিথ্যা মামলা ক‌রে‌ছেন সালাউ‌দ্দিন মাতব্বর।

ভেদরগঞ্জ থানা পুলি‌শের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ও‌সি) ‌মো. নজরুল ইসলাম ব‌লেন, এ ব্যাপা‌রে এক‌টি মামলা হ‌য়ে‌ছে। তদন্ত চল‌ছে । অভি‌যোগ প্রমাণ হ‌লে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হ‌বে।

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *